রাজশাহীরাজশাহীর সংবাদসংবাদ সারাদেশ

ছুরিকাঘাতে চাচার মৃত্যু, আসামী পলাতক

বগুড়া প্রতিনিধি

শুক্রবার সকালে বগুড়ার সদর উপজেলায় লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের রহমতবালা গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে ৪০ বছর বয়সী জাহের প্রামাণিক নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এবং আহত হয়েছেন বাবা-ছেলেসহ তিনজন। হতাহতরা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

বগুড়া সদর থানার এসআই মুক্তার হোসেন জানান, নিহত জাহের ওই গ্রামের হারুনুর রশিদের ছেলে। তিনি পেশায় সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক ছিলেন। আহতরা হলেন নিহতের ভাই তাহের প্রামাণিক, বাদল প্রামাণিক ও বাদল প্রামাণিকের ছেলে ইসলাম। তারা বগুড়া টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গেছে, জাহেরের সঙ্গে একই গ্রামের নূর আমিনের দীর্ঘদিনের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। নূর আমিন লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। জাহেরের বাড়ির পাশে থাকা প্রায় দুই শতক জমি নিয়ে তাদের এই বিরোধ। জমিটি দীর্ঘদিন ধরে জাহের ভোগ দখল করে আসলেও তা নিজের বলে দাবি করে আসেন নূর আমিন। বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার সকালে গ্রামের লোকজনকে নিয়ে সালিশে বসা হয়। ওই সময় জমি-পরিমাপ করা হচ্ছিল।

সালিশ চলাকালীন একপর্যায়ে নূর আমিনের ছেলে সজিব প্রতিপক্ষ জাহেরের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলেই তার (জাহের) মৃত্যু হয়। সজিব এ সময় জাহেরের দুই ভাই ও এক ভাতিজাকেও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন।

জাহের ও নূর আমিনের মধ্যে যে দুই শতক জমি নিয়ে বিরোধ চলছে, সেই জমি ওদের একজনেরও নয়। ওটা আসলে খাস (সরকারি) জমি। তবে এই জমি দীর্ঘদিন ধরে জাহেরের পরিবার ভোগ দখল করে আসছে।

বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, হতাহতের ঘটনায় থানায় এখনো মামলা হয়নি। অভিযুক্তকে আটক করতে অভিযান চলছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button