ঈশরদীরাজশাহীরাজশাহীর সংবাদ

ঈশ্বরদীতে স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত, আটক মেয়ে ছিনতাইকারী

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৩ টার দিকে ঈশ্বরদীতে এক স্বর্ণের ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করেন। স্বর্ণের চেইন ছিনতাইয়ের সময় ফারজানা তাবাসসুম কনিকা ২০ নামের এক মেয়ে ছিনতাইকারীকে আটক করেছে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ। ঈশ্বরদী রূপালী ব্যাংকের মেইনরোড সংলগ্ন মিঠু জুয়েলার্স নামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর দোকানে এই ঘটনাটি ঘটে।

মেয়ে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত স্বর্ণ ব্যবসায়ী মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু জোয়াদ্দার ৫৫ কে প্রথমে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত ৮ টার দিকে তার অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

মিঠু জোয়াদ্দার ভাঙ্গা কন্ঠে বলেন, অপরিচিত একজন মেয়ে ক্রেতা সেজে এসে আমাকে বলে একটি সোনার চেইন দেখান আমি তাকে একটি চেইন দেখালে মহিলাটি কৌশলে আমার চেইনটি পাল্টে একটি ইমিটেশনের চেইন ফেরত দিয়ে সেখান থেকে চলে যাওয়ার সময় আমি তার হাত চেপে ধরি। তখন মেয়েটি তার ভ্যানিটি ব্যাগের ভেতর থেকে একটি চাকু বের করে আমার পেটে ঢুকিয়ে দেয়। আমি তখন তাকে সজোরে ধাক্কা দিয়ে চোর চোর বলে চিৎকার করি। মহিলাটি তাড়াতাড়ি পালাতে গেলেই স্থানীয় লোকজন এসে তাকে আটক করে থানা পুলিশকে খবর দেয়।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফিরোজ কবির জানান, মেয়েটির চেইন দেখার সঙ্গে সঙ্গে তা নিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে দোকানদার মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু তার হাত চেপে ধরে আটকানোর চেষ্টা করলে সেই সময়ে ওই মেয়েটি তার ব্যাগে থাকা একটি ধারালো চাকু দিয়ে দোকানদার মিঠুর পেটে ঢুকিয়ে দৌড়ে দোকান থেকে পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয় দোকানদারগণ তাকে আটকে পুলিশে খবর দেয় । ঘটনাস্থল থেকে ওই মেয়েকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভিকটিমের কেউ এখনো কোনো এজাহার দিতে থানায় আসেনি বিধায় কোন মামলা হয়নি। তারা এজাহার দিলে আমরা মামলা নেব। এই ব্যাপারে অভিযুক্ত মেয়েটির স্বীকারোক্তি দিয়েছে, আমি দোকানে চেইন কিনতে গেলে আমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়।

তারপর আমি তারই দোকানে থাকা একটি ছোট্ট চাকু দিয়ে তার হাতে আঘাত করলে সে সরে গেলে তার পেটে লাগে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফারজানা তাবাসসুম কনিকা ঈশ্বরদী শহরের গোপালপুর এলাকার মোঃ হুমায়ুন কবির ওরফে কর্নেলের মেয়ে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button