রাজশাহীর সংবাদসংবাদ সারাদেশ

পীরগঞ্জে চাকুরীজীবিকে ফাঁসাতে থানায় মিথ্যা অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

 

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন গুয়াগাঁও মহল্লায় ভাই ভাই মারামারির ঘটনায় দুই সরকারী চাকুরীজীবিসহ একই পরিবারের ৫ জনকে ফাঁসাতে মোঃ রনি নামে এক যুবক পীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেন।

গুয়াগাঁও মহল্লার নজরুল ইসলামের ছেলে রনি, রফিক ও আলাল মাদক, দাদন ব্যবসার সুদের টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। একপর্যায়ে তর্কবির্তক ও উত্তেজিত হয়ে তাদের মধ্যে তুমুল মারামারি হয়। গত ১৯ অক্টোবর দুপুর ১২ টায় ঘটনাটি তাদের নিজ বাড়িতে সংঘটিত হয়। ঐ সময় রনি, রফিক ও আলাল একে অপরকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্সী সাক্ষী হিসেবে ঐ ওয়ার্ডের পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুস সামাদসহ স্থানীয় লোকজন রয়েছে। প্রতিবেশী মোঃ আব্দুল আজিজ পীরগঞ্জ ভূমি অফিসের সরকারী চাকুরীজীবি আজিমুন নাহার রানী, তার মা সূর্য্য বানু বেগম, তার বোন চন্দ্রা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক মোছাঃ আজমেরী বেগম, তার ভাই ঔষধ কোম্পানীতে রিপ্রেজেনটেটিভ মোঃ সুলতানকে আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন রনি। অভিযোগে হুমকি ধামকি গুরুতর আহতসহ টাকা চুরির অপরাধের অভিযোগ আনায়ন করা হয়েছে।

সরেজমিন ও একাধিক বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন ও সময়ে আজিমুন নাহার ও আজমেরী বেগম তাদের নিজনিজ সরকারী কর্মস্থলে ছিলেন। তার বাবা আব্দুল আজিজ তার মায়ের মৃত্যুতে দিনাজপুর সদর উপজেলায় নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। এছাড়া মোঃ সুলতান তিনি ঔষধ কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন। অথচ ভাই ভাই মারামারি করে নিরপরাধ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ আনয়ন করায় এলাকার সচেতন মহলের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করায় মামলার বাদী মোঃ রনি, তার পিতা নজরুল ইসলাম ও তাদের পরিবারের সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন এলাকাবাসী। এরপরেও মামলার বাদী ও তার পরিবারের সদস্যরা ঐ ৫ ব্যক্তিকে নানা রকম হুমকি ধামকি দিচ্ছে। পুনরায় মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল হাজত বাস করাবে বলে অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

রনির দায়ের কৃত অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button