নওগাঁরাজশাহীর সংবাদ

নওগাঁয় ব্যাংকে মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে সোয়া লাখ টাকা গায়েব

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নওগাঁয় সোনালী ব্যাংকে টাকা জমা দিতে গিয়ে নাছরিন আক্তার নামে এক গ্রাহকের সোয়া লাখ টাকা চুরি হয়েছে। বিষয়টি ধরা পড়েছে ব্যাংকের সিসিটিভি ফুটেজে।

ভুক্তভোগী নাছরিন সোমবার সন্ধ্যায় নওগাঁ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তিনি নওগাঁ পৌরসভার চকদেব ডাক্তারপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

নাছরিন সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চাচাকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাংক হিসাবে এক লাখ ৩১ হাজার টাকা জমা দিতে যান। ব্যাংকে গিয়ে রসিদ পূরণ করার পর টাকাগুলো জমা দেওয়ার জন্য কাউন্টারের সামনে রাখেন। পাশে থাকা এক ব্যক্তি তাকে বলেন, পায়ের কাছে কিছু টাকা পড়ে আছে। তিনি ও তার চাচা সেই টাকা তোলার জন্য মাথা নিচু করেন। এ সুযোগে কাউন্টারে রাখা ১ লাখ ৩১ হাজার টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যান ওই ব্যক্তি। এরপর বিষয়টি ব্যাংকের ব্যবস্থাপককে জানান তিনি।

ভুক্তভোগী নাছরিন আক্তার বলেন, টাকাগুলো কাউন্টারের ভেতরে কর্মকর্তাকে দেওয়ার জন্য রাখা ছিল। এ সময় পাশে থাকা এক ব্যক্তি আমাকে বলেন, আপা আপনার কিছু টাকা পড়ে গেছে। এরপর দেখি ১০০ ও ৫০০ টাকার কয়েকটি নোট পড়ে আছে। ভাবলাম হয়তো আমারই টাকা হবে। আমি এবং চাচা মাথা নিচু করে টাকাগুলো তুলছিলাম। এরপর প্রায় ১০-১২ সেকেন্ড পর উঠে দাঁড়িয়ে দেখি আমার টাকা নিয়ে লোকটি চলে গেছে। এত দ্রুত টাকা নিয়ে গেল ধারণাই করতে পারছি না।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার পরই ব্যাংকের ম্যানেজারকে বিষয়টি জানানো হয়। এরপর সন্ধ্যার দিকে থানায় একটি অভিযোগ করেছি।

সোনালী ব্যাংক নওগাঁ শাখার ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক রবিউল ইসলাম বলেন, ওই গ্রাহক টাকা চুরির বিষয়টি জানানোর পর ব্যাংকের সিসিটিভি ফুটেজ দেখি। ফুটেজে ওই গ্রাহকের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। ফুটেজে দেখা গেছে, একটি কাপড়ের ব্যাগ নিয়ে শার্ট পরা এক ব্যক্তি মুখে মাস্ক পরে ওই গ্রাহকের পাশে দাঁড়িয়েছিল। মাস্ক পরে থাকায় লোকটির মুখ ভালোভাবে বোঝা যাচ্ছে না। ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে লোকটি নিজেই টাকা ফেলে দিয়ে ওই গ্রাহককে সেই টাকার বিষয়টি জানান। এ সময় ওই নারী গ্রাহক টাকা তুলতে মাথা নিচু করলে তৎক্ষণাৎ লোকটি বাম হাত দিয়ে কাউন্টারের সামনে রাখা টাকাগুলো তার ব্যাগে ঢুকিয়ে ব্যাংক থেকে বের হয়ে যান।

নওগাঁ সদর থানার ওসি নজরুল ইসলাম এ বিষয়ে বলেন, এ ঘটনায় সন্ধ্যায় থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী নাছরিন আক্তার। সোনালী ব্যাংক ম্যানেজারের উপস্থিতিতে ব্যাংকটির শাখা অফিস পরিদর্শন করা হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button