রাজশাহীরাজশাহীর সংবাদ

রাজশাহীতে র‌্যাব-৫ কর্তৃক ২৩ মাদক সেবনকারী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ

গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর রাত ১২.৪৫ মিনিটে রাজশাহী জেলার পুঠিয়া থানাধীন বানেশ্বর হতে মারিয়াগামী রোডের ভাইভাই এন্টারপ্রাইজ মিলের পশ্চিম পার্শ্বে জনৈক খলিল সরকার (৭০), পিতা-মৃত ফকির সরকার এর প্রাচীর বেষ্টিত আম বাগানের ভিতরে অপারেশন পরিচালনা করে ১০ গ্রাম গাঁজা , ১ টি কলকী, ২০ টি নাছির বিড়ি, ১ টি গ্যাস লাইট, ১ টি ব্লেডসহ ২৩ জন গাঁজা সেবনকারীকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ১। মোঃ জাহিদুল (৩৫), পিতা-নইরুদ্দিন, গ্রাম-আড়ইল, থানা-দুর্গাপুর, জেলা-রাজশাহী, ২। মোঃ আতিকুর রহমান (৩২), পিতা-আঃ আলিম, গ্রাম-বড় হরিশপুর, নাটোর সদর থানা, জেলা-নাটোর, ৩। মোঃ তফিকুল ইসলাম (৪৫), পিতা-মৃত এজার উদ্দিন, ৪। মোঃ রুবেল (৩২), পিতা-মৃত মোক্তার, গ্রাম-হলিদাগাছি, থানা-চারঘাট, ৫। মোঃ সেন্টু (২৮), পিতা-মৃত ফারুখ, গ্রাম-বাড়ইপাড়া, থানা-পুঠিয়া, জেলা-রাজশাহী, ৬। মোঃ হাসান আলী (৩৫), পিতা-গফুর শাহ, গ্রাম-মোমিনপুর বড়শিংগা, থানা-নলডাঙ্গা, জেলা-নাটোর, ৭। মোঃ রাজ্জাক (৬০), পিতা-মৃত আব্দুল, গ্রাম-পশ্চিম নওদাপাড়া, থানা-গুরুদাসপুর, জেলা-নাটোর, ৮। আব্দুল কুদ্দুস (৪৫), পিতা-মৃত রমজান আলী, গ্রাম-শ্রীপুর, থানা ও জেলা-পাবনা, ৯। মোঃ উকিল (৫০), পিতা-মৃত তমেজ, গ্রাম-হলিদাগাছি, থানা-চারঘাট, জেলা-রাজশাহী, ১০। মোঃ শামীম (৪৫), পিতা-কানাই সরকার, গ্রাম-মেহেরচন্ডি, থানা-মতিহার, ১১। মোঃ হাবিবুর রহমান (৩৮), পিতা-মৃত আফছার আলী, গ্রাম-বেলপুকুর, থানা-বেলপুকুর, জেলা-রাজশাহী, ১২। মোঃ আতাউর রহমান (৩৫), পিতা-মোঃ আকবর আলী, গ্রাম-ছোট ধাদাস, ১৩। মোঃ আলম (২৭), পিতা-মোঃ আকবর, গ্রাম-ক্ষুদ্রজামিরা, থানা-বেলপুকুর, জেলা- রাজশাহী, ১৪। মোঃ সাব্বির (২০), পিতা-বাবলু, গ্রাম-বালিয়া পুকুর, থানা-বোয়ালিয়া, জেলা-রাজশাহী, ১৫। মোঃ খোরশেদ আলম (৩৫), পিতা-মৃত বশির, গ্রাম-কুটিপাড়া (বানেশ্বর), থানা-পুঠিয়া, জেলা-রাজশাহী, ১৬। মোঃ আবুল হোসেন (৬৫), পিতা-মৃত মোহাম্মদ আলী, গ্রাম-ভদ্রা, ১৭। মোঃ আজিম উদ্দিন (৬১), পিতা-মৃত জসিম উদ্দিন, গ্রাম-সুজানগর, ১৮। মোঃ ফরিদ হোসেন (৩০), পিতা-মৃত শুকুর আলী, গ্রাম-ভদ্রা, থানা-বোয়ালিয়া, জেলা-রাজশাহী, ১৯। মোঃ দুলাল (২৫), পিতা-মৃত আবুল কালাম, গ্রাম-রদবাড়ী রাজাপুর, থানা ও জেলা-নাটোর, ২০। নূর ইসলাম (২৬), পিতা-মোঃ আনার, গ্রাম-সত্তরগাছি, থানা-বেলপুকুর, জেলা-রাজশাহী, ২১। মোঃ তিতাস (২৮), পিতা-কামাল হোসেন, গ্রাম-বিনোদপুর মির্জাপুর, থানা-মতিহার, জেলা-রাজশাহী, (২২)। মোঃ সামাদুল (৩৫), পিতা-মোঃ শুকচান, গ্রাম-হলিদাগাছি, থানা-চারঘাট, এবং ২৩। মোঃ মন্টু (৫৫), পিতা-মৃত মুনসুর প্রামানিক, গ্রাম-দিঘলকান্দি প্রামানিকপাড়া, থানা-পুঠিয়া, জেলা-রাজশাহী।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব ৫, রাজশাহীর সিপিএসসি, মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল জানতে পারে যে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া থানাধীন বানেশ্বর হতে মারিয়াগামী রোডের ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজ মিলের পশ্চিম পার্শ্বে খলিল সরকার নামে এক ব্যক্তি, পিতা-মৃত ফকির সরকার এর প্রাচীর বেষ্টিত আম বাগানের ভিতর কতিপয় ব্যক্তি আসর বসিয়ে মাদকদ্রব্য গাঁজা সেবন করছে এবং জনসাধারণের শান্তি বিনষ্ট ও বিরক্তিকর আচরণ করছে।

উক্ত সংবাদ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ রাত ১২.৪৫ মিনিটে উক্ত স্থানে উপস্থিত হওয়া মাত্রই র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গোল হয়ে বসা আসর হতে তারা পালানোর চেষ্টাকালে উল্লিখিত আসামীদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ব্যাক্তিদের নাম-ঠিকানা জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে উপরোক্ত নাম ঠিকানা প্রকাশ করে এবং জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে ধৃত ব্যক্তিগণ প্রকাশ্যে স্বীকার করে যে, তারা একত্রে গাঁজার আসর বসিয়ে মাদক সেবন করছিল।

আসামীদেরকে ও গাঁজা সেবনের আসর তল্লাশী করে সেখান থেকে আলামত হিসেবে ১ নং আসামী মোঃ জাহিদুল এর শার্টের বুক পকেটে থাকা কাগজে মোড়ানো ১০ গ্রাম গাঁজা, যার মূল্য অনুমানিক ১০০০ টাকা, গাঁজা সেবনের আসর হতে ১ টি গাঁজা সেবনের কলকী, ২০ টি নাছির বিড়ি, ১ টি গ্যাস লাইট ও ১ টি ব্লেড উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে যে, তারা অবৈধভাবে মাদকদ্রব্য গাঁজা হেফাজতে রেখে একত্রে গাঁজার আসরে বসে গাঁজা সেবন করছিল। আসামীদের বিরুদ্ধে রাজশাহী জেলার পুঠিয়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button