সংবাদ সারাদেশ

টিকার আওতায় আসছে ১২ বছরের শিক্ষার্থীরাও

জাতীয় ডেস্কঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১২ বছর ও এর বেশি বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনার টিকার আওতায় আনা হবে। আজ বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে জাতীয় পার্টির সাংসদ রুস্তম আলী ফরাজীর প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ তথ্য দেন।

অধিবেশনের সভাপতিত্বে ছিলেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের ৮০% জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনার পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই লক্ষ্য মাত্রার ৫০% জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুসরণ করা এবং ১২ বছর ও এর বেশি বয়সী সব ছাত্র-ছাত্রীদের টিকার আওতায় আনা হবে। এছাড়া, মন্ত্রণালয়ের দেওয়া প্রতিবন্ধীদের সুবর্ণকার্ডের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থাসহ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শ্রমিকদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২৪ কোটি ৬৫ লাখ ১৩ হাজার ৬৬০ ডোজ টিকা সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তির আওতায় ৪ কোটি ৪৪ লাখ ৩১ হাজার ৮৮০ ডোজ টিকা পাওয়া গেছে। এছাড়া, প্রতিমাসে যেন ১ কোটি ডোজ বা তার বেশি টিকা পাওয়া যায়, সেই ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

অক্টোবর থেকে প্রতিমাসে সিনোফার্মের ২ কোটি হিসেবে ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ৬ কোটি টিকা পাওয়া যাবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টিকা দেওয়া সম্ভব হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি। পরিস্থিতি আবারো স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। এজন্য টিকা গ্রহণের পাশাপাশি সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button