Uncategorized

রাবিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত, হল না খোলায় দূর্ভোগে শিক্ষার্থী

স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলো স্বশরীরে নেওয়া শুরু হয়েছে। আবাসিক হলগুলো বন্ধ থাকায় অতিরিক্ত ভাড়ায় মেস ও বাসা নিয়ে থাকতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। একই সঙ্গে বেড়েছে শিক্ষার্থীদের ওপর সহিংসতা ও মালামাল চুরি যাওয়ার মতো ঘটনা।

এদিকে, ক্যাম্পাস কবে খুলবে তা নিয়ে এখনও সিদ্ধান্তহীনতায় রয়েছে প্রশাসন। ফলে, হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা নেয়ার মতো সিদ্ধান্ত গ্রহনে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্বশাসন নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তারা এবং অতি দ্রুত ক্যাম্পাস খোলার দাবি জানিয়েছেন।

তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চলতি মাসে বেশ কয়েকটি বিভাগে ফরম ফিল আপ ও পরীক্ষার রুটিন দেওয়া হয়েছে। যার কারনে তরিঘড়ি করে ক্যাম্পাস সংলগ্ন বিভিন্ন মেস ও বাসা ভাড়া নিয়ে গাদাগাদি করে থাকতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। অতিরিক্ত চাপ বাড়ায় নানা অজুহাতে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগও উঠেছে।

প্রশাসন চাইলেই আবাসিক শিক্ষার্থীদের হলে থাকতে দিতে পারতো, এত কষ্ট করতে হতো না। ইসলামিক স্টাডিজের এক শিক্ষার্থী বলেন, প্রশাসন দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিচ্ছে। কারণ এখনও প্রশাসন কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারেনি। ক্যাম্পাস খোলার ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় তার স্বায়ত্বশাসন প্রাকটিস করতে পারছে না। এদিকে হল বন্ধ রেখে বিভিন্ন বিভাগে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা নানা সমস্যার মধ্য দিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছে। আমরা চাই দ্রুত ক্যাম্পাস খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক।

এই বিষয়ে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম বলেন, সরকারি নির্দেশনার বাইরে আলাদা করে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়নি। শিক্ষার্থীদের কিছু অসুবিধা হচ্ছে। কিন্তু, সরকারের সিদ্ধান্তের বিষয়টিও দেখতে হয়। কারণ কোভিডের বিষয়টি তো আর স্থানীয় না। এদিকে দীর্ঘদিন হলগুলো বন্ধ থাকায় সেগুলো সংস্কারের প্রয়োজন রয়েছে। সেটার জন্যও পর্যাপ্ত সময় প্রয়োজন। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত এগুলো সমাধান করার।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button