পবারাজশাহীরাজশাহীর সংবাদ

এমদাদুলকে চেয়ারম্যান হিসেবে চান বড়গাছি ইউনিয়নবাসী

স্টাফ রিপোর্টারঃ

পবা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও বড়গাছির মাটি ও মানুষের নেতা এমদাদুল হক এমদাদ দলীয় মনোনয়ন না পেয়েও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ৮ হাজার ৯ ‘শর বেশি ভোট পেয়ে অলোচিত হয়েছিলেন।

গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় সিন্ডিকেট করে তাকে দলীয় মনোনয়ন না দিলেও বিপুল ভোট পেয়ে নিজের গ্রহণযোগ্যতা ফিরিয়ে আনেন তিনি। বড়গাছির একাধিক গ্রাম ঘুরে বেরিয়ে আসে এই এমদাদুল হক, এমদাদের প্রতি সাধারণ মানুষের ভালোবাসা।

ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ সাধারণ মানুষেরা এমদাদের প্রতি তাদের শতভাগ আস্থার কথা জানিয়েছেন। তাদের দাবি আগামী নির্বাচনে এমদাদকে দলীয় মনোনয়ন দিলে প্রমাণ হবে জনগনের ভালোবাসা। স্থানীয়দের অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নৌকা প্রতীক নিয়ে গত নির্বাচনে আমাদের প্রতীককে অপমান করা হয়েছে।

নৌকা প্রতীক যে ভোট পেয়েছিল, তা দল দরদীদের জন্য কষ্টদায়ক। এবার কোন অযোগ্য ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়ার চিন্তা থাকলে সেটি এখনি ঝেড়ে ফেলতে হবে। বড়গাছি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কর্ণধার হিসেবে এমদাদের কোন বিকল্প নেই বলে মনে করছেন ইউনিয়নবাসী।

দরিদ্রদের দাবি, করোনাকালীন সময়ে এমদাদের নিকট থেকে অনেক সহযোগিতা পেয়েছি। চাল ডাল দেওয়া থেকে শুরু করে বিভিন্নভাবে তিনি আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের একজন পদধারি ব্যক্তি বলেন, শুধু বড়গাছি নয় পবা আওয়ামীলীগ যুবলীগকে সুসংগঠিত করতে এমদাদের অবদান অনেক। তিনি বলেন, এবার দলীয় মনোনয়নসহ বড়গাছি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হিসেবে এমদাদ জয়ী হবেন বলে আমরা আসা করছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, একটি কুচক্র মহল নির্বাচনের আগে এমদাদকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button