চারঘাটরাজশাহী

চারঘাটে রনি কুতুবের রষানলে শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার হলিদাগাছি সংলগ্ন  তালতলা এলাকার ভয়ংকর  রনি কুতুবের রষানলে পড়ে একজন স্কুল শিক্ষক সর্বশান্ত হতে বসেছেন। দীর্ঘ  অনুসন্ধানে জানা যায় সাদিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের কম্পিউটার শিক্ষক আব্দুর রউফ তার  প্রতিবেশি রনি কুতুবের জমি ক্রয় বাবদ জনতা ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা প্রদান করেন।

কিছুদিন পর শিক্ষক আব্দুর রউফ তার জমি রেজিষ্ট্রি করে নিতে চাইলে রনি কুতুব বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করেন। অভিযোগ তুলেন তিনি শিক্ষক আব্দুর রউফের নিকট লাভের উপর টাকা গ্রহন করে ছিলেন। স্থানিয়রা জানান শিক্ষক আব্দুর রউফের যে টাকা নগদ ও চেকের মাধ্যমে রনি কুতুব গ্রহন করেছেন সেটি অনেকেই জানেন। একটি সুত্র বলেন একজন গ্রামের সহজ সরল শিক্ষক কে মানহানি সহ তার টাকা আত্নসাৎ করতেই এই রনি কুতুবের দল একটি সিন্ডিকেট তৈরি করেছে। তারা আব্দুর রউফকে লাঞ্চিত করার মত ঘটনার ও জন্ম দিয়েছে।

বিষয়টি মৌখিক ভাবে চারঘাট থানা পর্যন্ত গড়ালেও চারঘাট থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি পুলিশ। এমন সিন্ডিকেটের কারণে একজন শিক্ষক তার পাওনা টাকা জমির বিষয়টি নিয়ে যে ভোগান্তিতে পড়েছে সেটি ভালো চোখে দেখছেন না স্থানিয়রা। হলিদা গাছি, তালতলার অনেকেই এমন ঘটনার জন্য রনি কুতুবকেই দায়ি করেছেন। তারা বলছেন চেক ষ্ট্যাম্প থাকার পরেও আব্দুর রউফে কে জমি না দিয়ে যে প্রতারণা করা হচ্ছে সেটি অন্যায়। প্রশাসনের একটি সুত্র বলেন বিষয়টি আমরাও নজরদারি করছি প্রয়োজনে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। রনি কুতুব একজন সুবিধা বাদি ব্যক্তি তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button