চাপাইনবাবগঞ্জরাজশাহীরাজশাহীর সংবাদ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুরুষ স্ত্রী দুইটি লিঙ্গ নিয়ে এক অদ্ভুত শিশুর জন্ম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

গতকাল শুক্রবার রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ছেলেদের পুরুষাঙ্গ ও মেয়েদের যৌনাঙ্গসহ অর্ধেক মাথা নিয়ে জন্ম নিয়েছে এক অদ্ভূত শিশু।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার বালুগ্রাম দক্ষিণটোলা গ্রামের ভ্যানচালক নাসির হোসেনের স্ত্রী জিন্নাতুন খাতুন ২৪ শিশুটির জন্ম দিয়েছেন।

জানা গেছে, প্রসব ব্যথা উঠলে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ওই প্রসূতিকে ক্লিনিকে ভর্তি করে পরিবারের লোকজন। বাচ্চা প্রসবের নির্ধারিত সময়ের বেশি ২ দিন পার হওয়ায়, সিজার করার সিদ্ধান্ত নেয় চিকিৎসক ডা. হাসেম আলী।

সিজারে অংশ নেয়া নার্স (সেবিকা) ফাতেমা খাতুন জানান, অপারেশন থিয়েটারে সিজার করার সময়ই দেখতে পায় শিশুটির পুরুষাঙ্গ ও যৌনাঙ্গ দুটিই আছে। অপরদিকে বাচ্চাটির সম্পূর্ণ মাথা নেই। অসম্পূর্ণ মাথা নিয়েই জন্ম হয়, যা রয়েছে সম্পূর্ণ মাথার অন্তত এক-তৃতীয়াংশ। মগজ মাথার ভেতরে থাকার কথা থাকলেও, তা আছে বাইরে আরেকটি থলেতে।

ফাতেমা আরও জানন, আমার জীবনের প্রথম এমনটা দেখলাম। আমি সত্যিই অবাক হয়ে গেছি। এ খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে গেলে হুলস্থূল কাণ্ড দেখা দেয়। মেডিকেলের সামনে উৎসুক জনতার ভীড় জমে যায়। শিশুটি জন্মের পর ক্লিনিকের আয়া ইদন বেগম তার নাভি কেটেছেন।

মহানন্দা ক্লিনিক এ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শ্রী নন্দন কুমার কর্মকার জানান, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে আমাদের ক্লিনিকে বহু সিজার হয়েছে। কিন্তু নাসির হোসেনের ও জিন্নাতুন খাতুন দম্পতির শিশুটি অদ্ভুত আকৃতি ও অঙ্গ নিয়ে জন্ম নিয়েছে। বর্তমানে মা ও শিশু দুইজনেই সুস্থ রয়েছে।

বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম রাব্বানী জানান, এমন ঘটনা খুবই বিরল। উভয় লিঙ্গ নিয়ে জন্ম নেয়ার ঘটনা চিকিৎসা বিজ্ঞানে একেবারেই অদ্ভুত। মাথার খুলির পরিপক্বতা না পেলে মগজ আলাদা হয়ে থাকতে পারে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button