রাজশাহীরাজশাহীর সংবাদ

রাজশাহীতে বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার নিচে এখন পদ্মা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীতে বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে পদ্মার পানি। তারপরও রাজশাহী মহানগরীর ২টি নিচু এলাকা তলিয়ে গেছে এবং এই জেলার গোদাগাড়ী, বাঘা ও পবা উপজেলার চরাঞ্চলে ঢুকে পরেছে পানি।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) গেজ রিডার এনামুল হক বলেন, আজ ভোর ৬টায় রাজশাহী মহানগরীর বড়কুঠি পয়েন্টে পদ্মার পানির উচ্চতা ছিল ১৭.৭৮ মিটার। গত শনিবার ২১ আগস্ট দুপুর ১২টায় পদ্মার পানির উচ্চতা রেকর্ড করা হয় ১৭.৮৫ মিটার। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় পানির উচ্চতা ছিল ১৭.৮৩ মিটার। রাজশাহীতে পদ্মার পানির বিপদসীমা ১৮.৫০ মিটার।

বর্তমানে পানি বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার নিচেই আছে।তবে, ইতোমধ্যেই রাজশাহী মহানগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের তালাইমারী শহিদ মিনার, পঞ্চবটি ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের শ্রীরামপুর এলাকায় পদ্মার তীর সংলগ্ন নিচু এলাকাগুলো পানিতে ডুবে গেছে। ২৪ নম্বর ওয়ার্ডেরই প্রায় ২ হাজার বাড়িতে পানি ঢুকে গেছে। ফলে, ঝুঁকিতে পড়েছে শ্রীরামপুর টি-গ্রোয়েন। পরিস্থিতি সামলাতে সেখানে বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলছে রাজশাহী পাউবো।

রাজশাহী পাউবোর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রিফাত করিম বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ টি-গ্রোয়েন ও এর আশপাশে মোট ১৬ হাজার বালুর বস্তা ফেলা হবে। ইতোমধ্যেই ১৪ হাজারের বেশি বস্তা ফেলা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, রাজশাহী শহরের পদ্মাপাড়ের নিচু দু’একটি মহল্লায় পানি ঢুকে পরেছে। তবে গোদাগাড়ী, পবা ও বাঘায় পদ্মার ওপারের চরাঞ্চলে পানি ঢুকেছে। এসব চরে অনেক পরিবার পানিবন্দী পরেছে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button