অর্থনীতিরাজশাহীর সংবাদসংবাদ সারাদেশ

অনলাইন জুয়াড় বিরুদ্ধে নেই প্রশাসনিক তৎপরতা

স্টাফ রিপোর্টারঃ

দীর্ঘ সময় লকডাউনের মধ্যে অলস সময় কাটানোর ফলে অনৈতিক কার্যকলাপ এর সাথে জড়িয়ে পরছে কোমল মতি শিশু-কিশোর এবং উঠতি বয়সি তরুণরা। মূলত স্মার্ট ফোনে লুডু গেইম খেলার মাধ্যমেই তারা এই জুয়া খেলায় আসক্ত হয়ে পড়ছে।

এই লুডু গেমের পাশাপাশি ফ্রি ফায়ার গেম খেলার প্রবণতাও দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। রেলস্টেশন, বাস টার্মিনাল এবং নিরিবিলি জায়গায় ৩ থেকে ৪ জন একসঙ্গে বসে এই জুয়া খেলছে। এমনকি বিভিন্ন বাসা-বাড়িতেও স্কুলপড়ুয়া কিশোর-তরুণরা এই জুয়া খেলায় জড়িয়ে পড়ছে।

এতে প্রতিটি গেমে খেলোয়াড়রা কমপক্ষে ৫০ থেকে ৫০০ টাকা করে বাজি ধরছে। সারাদিন এ খেলা চলতেই থাকে। এতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পরিবারগুলো। মোবাইল জুয়াকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন এলাকায় গড়ে উঠছে কিশোর গ্যাং। তারা জুয়ার টাকা জোগাড় করতে নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছে।

তবে জুয়া খেলা বন্ধে এখন পর্যন্তও প্রশাসনিক কোন তৎপরতা চখে পড়ে নি। অনতিবিলম্বে এসব জুয়া খেলা বন্ধ করা দরকার। এই প্রসঙ্গে পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, পুলিশ লকডাউন বাস্তবায়নে কর্তব্যরত থাকায় অন্যদিকে তেমন একটা নজর দিতে পারছে না। তবে অভিযোগ পেলে অবশই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এই ধরণের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button